সুগন্ধিতে কী পরিমাণ এ্যলকোহল থাকলে ব্যবহার করা যাবে?

জিজ্ঞাসা–৩১৯: সুগন্ধিতে কী পরিমাণ এ্যলকোহল থাকলে ব্যবহার করা যাবে?– নোমান: fjarfim1205@gmail.com

জবাব: যে সব এ্যালকোহল আঙ্গুর, খেজুর অথবা কিসমিস থেকে তৈরি সেসব এ্যালকোহল সম্পূর্ণ নাপাক এবং হারাম। এধরণের এ্যালকোহল-মিশ্রিত সুগন্ধি ব্যবহার করা যাবে না। কেননা, রাসূল  বলেছেন, كُلُّ مُسْكِرٍ حَرَامٌ  নেশা সৃষ্টিকারী প্রতিটি বস্তুই হারাম। (বুখারী: ৪৩৪৩)

আর উপরোক্ত তিন জিনিস ব্যতীত অন্যান্য জিনিস থেকে যে সব এ্যালকোহল তৈরি করা হয়। যেমন, এখনকার সেন্ট বা বডি স্প্রেগুলোতে সাধারণত আঙ্গুর, খেজুর বা কিসমিস থেকে প্রস্তুতকৃত এ্যালকোহল থাকে না; বরং বিভিন্ন শস্যদানা, গাছ-পালার খাল, মধু, শষ্য, যব, আনারসের রস, গন্ধক ও সালফেট অন্যান্য রাসায়নিক উপাদান ইত্যাদি থেকে প্রস্তুতকৃত এ্যালকোহল মিশানো হয়। (ইনসাইক্লোপিডিয়া অব ব্রিটানিকা: খ.১, পৃ.৫৪৪, প্রকাশকাল ১৯৫০খৃ.) এগুলো নাপাক নয় এবং নেশার উদ্রেক হয় না পরিমাণ ব্যবহার করা যায়। (তাকমিলাতু ফাতহিল মুলহিম: ১/৩৪৮,৩/৩৩৭; ফিকহুল বুয়ূ: ১/২৯৮)

সুতরাং যেহেতু সেন্ট বা বডি স্প্রেগুলোতে সামান্য পরিমাণ পরিশোধিত এ্যালকোহল ব্যবহার করা হয় কেবল তা সংরক্ষণের জন্য এবং মিশ্রণকৃত এ্যালকোহল শরীরের অভ্যন্তরে কোন প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে না, এজন্য এগুলোকে হারাম বলা যায় না। মিশ্রণের পরিমাণ স্বল্প হওয়ার কারণে এসব সেন্ট ব্যবহারে আপত্তি নেই। তবে এরূপ সেন্ট পরিত্যাগ করাই উত্তম। (জাদীদ ফিকহী মাসাইল: ১/৩৮)

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী

আরো পড়ুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six − three =