সালাতুত তাসবিহ সম্পর্কে সহিহ হাদিস আছে কি?

জিজ্ঞাসা–৬২৪: আসসালামু আলাইকুম, সালাতুত তাসবিহ্ নামাজ সম্পর্কে সহিহ হাদিসে কোন রেফারেন্স আছে কি? খুব দ্বিধায় আছি। জলদি উত্তর পেলে খুব উপকৃত হতাম। জাযাকাল্লাহ খইরান।– sabiha

জবাব: وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

ইবনে আব্বাস রাযি. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন,

عَنْ ابْنِ عَبَّاسٍ، قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللَّهِ ﷺ لِلْعَبَّاسِ بْنِ عَبْدِ الْمُطَّلِبِ: يَا عَبَّاسُ، يَا عَمَّاهُ، ” أَلَا أُعْطِيكَ، أَلَا أَمْنَحُكَ، أَلَا أَحْبُوكَ، أَلَا أَفْعَلُ لَكَ عَشْرَ خِصَالٍ إِذَا أَنْتَ فَعَلْتَ ذَلِكَ، غَفَرَ اللَّهُ لَكَ ذَنْبَكَ أَوَّلَهُ وَآخِرَهُ، وَقَدِيمَهُ وَحَدِيثَهُ، وَخَطَأَهُ وَعَمْدَهُ، وَصَغِيرَهُ وَكَبِيرَهُ، وَسِرَّهُ وَعَلَانِيَتَهُ، عَشْرُ خِصَالٍ: أَنْ تُصَلِّيَ أَرْبَعَ رَكَعَاتٍ، تَقْرَأُ فِي كُلِّ رَكْعَةٍ بِفَاتِحَةِ الْكِتَابِ وَسُورَةٍ، فَإِذَا فَرَغْتَ مِنَ الْقِرَاءَةِ فِي أَوَّلِ رَكْعَةٍ، قُلْتَ وَأَنْتَ قَائِمٌ: سُبْحَانَ اللَّهِ وَالْحَمْدُ لِلَّهِ وَلَا إِلَهَ إِلَّا اللَّهُ وَاللَّهُ أَكْبَرُ خَمْسَ عَشْرَةَ مَرَّةً، ثُمَّ تَرْكَعُ فَتَقُولُ وَأَنْتَ رَاكِعٌ عَشْرًا، ثُمَّ تَرْفَعُ رَأْسَكَ مِنَ الرُّكُوعِ فَتَقُولُهَا عَشْرًا، ثُمَّ تَهْوِي سَاجِدًا فَتَقُولُهَا وَأَنْتَ سَاجِدٌ عَشْرًا، ثُمَّ تَرْفَعُ رَأْسَكَ مِنَ السُّجُودِ فَتَقُولُهَا عَشْرًا، ثُمَّ تَسْجُدُ فَتَقُولُهَا عَشْرًا، ثُمَّ تَرْفَعُ رَأْسَكَ مِنَ السُّجُودِ فَتَقُولُهَا عَشْرًا، فَذَلِكَ خَمْسَةٌ وَسَبْعُونَ فِي كُلِّ رَكْعَةٍ، تَفْعَلُ فِي أَرْبَعِ رَكَعَاتٍ، إِنِ اسْتَطَعْتَ أَنْ تُصَلِّيَهَا فِي كُلِّ يَوْمٍ مَرَّةً فَافْعَلْ، فَإِنْ لَمْ تَسْتَطِعْ فَفِي كُلِّ جُمُعَةٍ مَرَّةً، فَإِنْ لَمْ تَفْعَلْ فَفِي كُلِّ شَهْرٍ مَرَّةً، فَإِنْ لَمْ تَفْعَلْ فَفِي عُمُرِكَ مَرَّةً

রাসূলুল্লাহ ﷺ আব্বাস ইবনে আব্দিল মুত্তালিবকে বলেছেন, হে চাচা! আমি কি আপনাকে দেব না? আমি কি আপনাকে প্রদান করব না? আমি কি আপনার নিকটে আসব না? আমি কি আপনার জন্য দশটি সৎ গুণের বর্ণনা করব না যা করলে আল্লাহ তাআলা আপনার আগের ও পিছনের, নতুন ও পুরাতন, ইচ্ছায় ও ভুলবশত কৃত, ছোট ও বড়, গোপন ও প্রকাশ্য সকল গুনাহ মাফ করে দেবেন?

আর সে দশটি সৎ গুণ হলো: আপনি চার রাকাত নামাজ পড়বেন। প্রতি রাকাতে সূরা ফাতিহা ও অন্য একটি সূরা পড়বেন। প্রথম রাকাতে যখন কিরাআত পড়া শেষ করবেন তখন দাঁড়ানো অবস্থায় ১৫ বার বলবেন_سُبْحَانَ اللَّهِ وَالْحَمْدُ لِلَّهِ وَلَا إِلَهَ إِلَّا اللَّهُ وَاللَّهُ أَكْبَرُ 

এরপর রুকুতে যাবেন এবঃ রুকু অবস্থায় (উক্ত দুআটি) ১০ বার পড়বেন। এরপর রুকু থেকে মাথা ওঠাবেন এবং ১০ বার পড়বেন। এরপর সিজদায় যাবেন। সিজদারত অবস্থায় ১০ বার পড়বেন। এরপর সিজদা থেকে মাথা উঠাবেন অতঃপর ১০ বার পড়বেন। এরপর আবার সিজদায় যাবেন এবং সিজদারত অবস্থায় ১০ বার পড়বেন। এরপর সিজদা থেকে মাথা ওঠাবেন এবং ১০ বার পড়বেন। এ হলো প্রতি রাকাতে ৭৫ বার।

আপনি চার রাকাতেই অনুরূপ করবেন। যদি আপনি প্রতিদিন আমল করতে পারেন, তবে তা করুন। আর যদি না পারেন, তবে প্রতি জুমাআয় একবার। যদি প্রতি জুমআয় না করেন তবে প্রদি মাসে একবার। আর যদি তাও না করেন তবে জীবনে একবার। (সুনানে আবু দাউদ ১২৯৭ সুনানে ইবনে মাজাহ ১৩৮৭ সহীহ ইবনে খুজাইমা ১২১৬ সুনানে বায়হাকী কুবরা ৪৬৯৫)

সালাতুত তাসবিহর হাদিস সহিহ। শায়েখ আবু সুহাইব খালেদ ইবন মাহমুদ আল হায়েক বলেন,

 وقد صححها وحسنها جمع من أهل العلم، منهم: أبو علي ابن السكن، والآجري، والحاكم، والبيهقي، والبغوي، وأبو موسى المديني، والمنذري، وابن الصلاح، وابن ناصر الدين الدمشقي، وتقي الدين السبكي، وولده تاج الدين، والعلائي، والبلقيني، والزركشي، والهيتمي، وابن الجزري، والسيوطي، وابن طولون، وأبو الحسن السندي، والمباركفوري، واللكنوي، وأحمد شاكر، والألباني

ওলামায়ে কেরামের যে জামাত সালাতুত তাসবিহর হাদিসকে সহিহ ও হাসান বলেছেন, তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন, আবু আলী ইবনুস সাকান, আজিরী, হাকিম, বাইহাকি, বগভি, আবু মুসা মাদিনী, মুনযিরি, ইবনুস সালাহ, ইবনু নাসিরুদ্দিন দামেশকি, তাকি উদ্দিন সুবকি, তাজুদ্দিন সুবকি, আলাঈ,  বিল্কিনি, যারকাশি, হাইছামি, ইবনুল জাযারি, সুয়ুতি, ইবন তুলুন, আবুল হাসান সিন্ধি, মুবারকপুরি, আহমদ শাকির ও আলবানি। (http://www.addyaiya.com)

যেমন ইমাম বাইহাকি রহ. বলেন,

كان عبدالله بن المبارك يفعلها، وتداوله الصالحون بعضهم عن بعض، وفيه تقوية للحديث المرفوع

আব্দুল্লাহ ইবন মুবারক রহ. এই নামায পড়তেন। পরবর্তী নেককারগণ পালাক্রমে এটি করে গেছেন। এ ব্যাপারে মারফূ’ হাদিসের সমর্থন রয়েছে। (আত তামহীদ ১/৬২)

ইমাম যারকাশি রহ. বলেন, وهو صحيح وليس بضعيف فضلا عن أن يكون موضوعا হাদিসটি সহিহ। জয়ীফ নয়। মওজু (জাল) হওয়া তো অনেক পরের কথা। (আউনুল মাবুদ ৪/১৭৮)

হাফেয সালাহুদ্দিন আলাঈ রহ. বলেন,

صلاة التسبيح: وهو حديث حسن صحيح، رواه أبو داود وابن ماجه بسند جيد إلى ابن عباس رضي الله عنهما

সালাতুত তাসবিহ। এর হাদিস হাসান সহিহ। উত্তম সনদে আবু দাউদ ও ইবন মাজা ইবনে আব্বাস রাযি. সূত্রে বর্ণনা করেছেন। (হিদায়াতুর রুয়াত ২/৮৪)

হাফেয ইবনে হাজার আসকালানি রহ. বলেন,إسناده لا بأس بهم এর সনদে কোনো অসুবিধা নেই। (আল খিসাল ১/৪২) إسناده حسن  এর সনদ হাসান। (আল লাআলী ২/৩৯)

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী
আরো পড়ুন–

ন্তব্য

  1. ড. সাইফুল্লাহ সিদ্দীকী বলেন এ হাদিসটি সহিহ নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen − four =