ক্যালেন্ডারে দেয়া সময়ের পরেও সাহরি খেলে রোজা হবে কি?

জিজ্ঞাসা–৪০০: সেহরির সময় ছিল ৩:৩৮। সেহেরি করেছি ৩:৩৯-৩:৪০ পর্যন্ত। রোজার কি কোন সমস্যা হবে? উল্লেখ্য ওই দিন ফজরের ওয়াক্ত শুরু হয়েছিল ৩:৪৩ মিনিটে। অনুগ্রহ করে জানাবেন।– Iqbal

জবাব: আমাদের জানা মতে প্রতিটি সাহরী ও ইফতারের সময়সূচির ক্যালেন্ডারেই সতর্কতামূলক দু,/এক মিনিট আগ পিছ করে সময় লেখা থাকে। যেমন, সুবহে সাদিকের প্রকৃত সময় যদি হয় ৩ টা ৪০ মিনিটে, তাহলে ক্যালেন্ডারে সতর্কতামূলক লেখা থাকে ৩ টা ৪২ মিনিট। সে হিসাবে আপনার রোযা হয়ে যাবে।

উল্লেখ্য, সুবহে সাদিকের কাছাকাছি সময় সাহরী খাওয়া মুস্তাহাব। তবে এত দেরি করা মাকরূহ যে, সুবহে সাদিক হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা হয়।

আবদুল্লাহ ইবনে আববাস রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ ইরশাদ করেছেন-

إنما معاشر الأنبياء أمرنا أن تعجل فطرنا وأن تؤخر سحورنا، قال الهيثمي رجاله رجال الصحيح.

সকল নবীকে সময় হওয়ার পরপরই ইফতার তাড়াতাড়ি করতে এবং সাহরী শেষ সময়ে খেতে আদেশ করা হয়েছে। (আলমুজামুল আওসাত ২/৫২৬; মাজমাউয যাওয়াইদ ৩/৩৬৮)

আমর ইবনে মায়মুন আলআওদী বলেন, সাহাবায়ে কেরাম দ্রুত ইফতার করতেন আর বিলম্বে সাহরী খেতেন। (মুসান্নাফে আবদুর রাযযাক ৭৫৯১; মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবা ৯০২৫)

রোযা ভঙ্গের কারণসমূহ বিস্তারিত জানার জন্য পড়ুন–জিজ্ঞাসা নং–৩৫৪

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী
আরো পড়ুন–রোজা ও যাকাত সম্পর্কে জরুরি কিছু ফাইল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 + 1 =