ফরজ গোসল না করে সাহরি খাওয়া যাবে কি?

জিজ্ঞাসা–৯৭৭: সেহেরির আগে যদি স্বপ্নদোষ হয় তাহলে কি ঐ অবস্থায় সেহেরি খাওয়া যাবে? সকালে গোসল করলে হবে না?–Roki জবাব: স্বপ্নদোষ হলে গোসল ফরজ হয়। আর গোসল ফরজ অবস্থায় নামায, তাওয়াফ, কুরআন তেলাওয়াত ও স্পর্শ করা এবং মসজিদে গমণ করা ছাড়াবিস্তারিত পড়ুন

পাক-নাপাকের ব্যাপারে সন্দেহ হলে…

জিজ্ঞাসা–৮৩৭: আসসালামু আলাইকুম। আমি জানতে যাই যে, যদি স্বপ্নদোষ হয় এবং তা বিছানার চাদরে লাগার মতো সন্দেহ সৃষ্টি হয় তাহলে কি এই বিছানার চাদর ধোয়ে দিতে হবে? এবং আমার অনেক সময় প্রস্রাব করার সময়, প্রস্রাব এর দুই-এক ফোটা হাতে বাবিস্তারিত পড়ুন

ফরজ গোসল না করে নামাজ আদায় করা যাবে?

জিজ্ঞাসা–৭৬৬: স্বপ্নদোষ হলে ফরজ গোসল না করে নামাজ পড়া যাবে? বিশেষ করে ফজরের নামাজ।– সিয়াম মিয়া। জবাব: নামাযের জন্য পবিত্রতা শর্ত। সুতরাং পবিত্র হওয়ার জন্য গোসল করতেই হবে। গোসল করে পবিত্র হওয়া ছাড়া নামায আদায় করা যাবে না। কেননা, আব্দুল্লাহবিস্তারিত পড়ুন

নাপাকি লেগে গেলে করণীয়

জিজ্ঞাসা–৬১৪: আসসালামুয়ালাইকুম। অন্য কোনো সাথী ভাইয়র যদি স্বপ্ন দোষ হয় এবং তা যদি চাদরে বা কাপড়ে লাগে, ওই নাপাক জায়গা হালকা ভেজা থাকা অবস্থায় যদি আমার হাত লাগে। তাহলে আমাকেও ফরয গোসল করতে হবে কিনা? –Nazmul khan জবাব: وعليكم السلامবিস্তারিত পড়ুন

যদি মাহরাম কাউকে নিয়ে স্বপ্নদোষ হয় তাহলে কোনো গুনাহ হবে কি?

জিজ্ঞাসা–৫৭১: যদি এমন কাউকে নিয়ে স্বপ্নদোষ হয় যে অনেক আপনজন, তাহলে কি গুনাহ হবে? এক্ষেত্রে কী করণীয়?– সাদমান। জবাব: যেমনিভাবে মানুষ স্বপ্নের মধ্যে কোনো নেক আমল করলে তার সাওয়াব পায় না, তেমনিভাবে মানুষ ঘুমে যা দেখে তার ব্যাপারে সে দোষীবিস্তারিত পড়ুন

রমজানে দিনের বেলা স্বপ্নদোষ হলে কি রোজা ভেঙে যাবে?

জিজ্ঞাসা–১৭৮: আসসালামু আলাইকুম। রোজা থাকা অবস্থায় দুপুরে ঘুমানো যায় কিনা এবং ঘুমের অবস্থায় যদি স্বপ্নদোষ হয় তাহলে করণীয় কি? — মোঃ মুঞ্জুর আলি: mdmonjurhochain@yahoo.com জবাব: وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته রোজা থাকা অবস্থায় দুপুরে ঘুমানো নিষেধ নয়। এর কারণে রোজাবিস্তারিত পড়ুন

স্বপ্নদোষ হলে কী করণীয়?

জিজ্ঞাসা– ১৩৯ : স্বপ্নদোষ হলে শুধুমাত্র নাভি থেকে নিচের দিকে ধুয়ে ফেললেই পবিত্রতা হাসিল হবে কিনা? নাকি পরিপূর্ণ গোসল করতে হবে?—Altaf Hosain জবাব:  না, হবে না; বরং পরিপূর্ণ গোসল করতে হবে। উম্মুল মুমিনীন হযরত উম্মে সালামা রাযি. বলেন, আবু তালহাবিস্তারিত পড়ুন