অজুর পানি কি নাপাক?

জিজ্ঞাসা–১৬৪০: অজুর সময় পানি ছিটে পায়জামার নিচের কিছু অংশ সম্পূর্ণ ভিজে গিলে কী অজু হবে নাকি হবে না?–Jannatul Ferdous lamia

জবাব: অজুর ব্যবহৃত পানি নাপাক নয়। তাই এই পানি পায়জামার লাগার কারণে পায়জামা নাপাক হয়ে যায় নি এবং অজুরও কোনো ক্ষতি হয় নি।

হাদিস শরিফে এসেছে, আবু হুরায়রা রাযি. থেকে বর্ণিত,

أُقِيمَتْ الصَّلَاةُ فَقُمْنَا فَعَدَّلْنَا الصُّفُوفَ قَبْلَ أَنْ يَخْرُجَ إِلَيْنَا رَسُولُ اللَّهِ ﷺ ، فَأَتَى رَسُولُ اللَّهِ ﷺ حَتَّى إِذَا قَامَ فِي مُصَلَّاهُ قَبْلَ أَنْ يُكَبِّرَ ، ذَكَرَ فَانْصَرَفَ ، وَقَالَ لَنَا : مَكَانَكُمْ ، فَلَمْ نَزَلْ قِيَامًا نَنْتَظِرُهُ حَتَّى خَرَجَ إِلَيْنَا وَقَدْ اغْتَسَلَ ، يَنْطُفُ رَأْسُهُ مَاءً، فَكَبَّرَ فَصَلَّى بِنَا

একবার নামাজের জন্য ইকামাত দেয়া হল এবং রসূলুল্লাহ এসে পৌছার আগেই আমরা দাঁড়িয়ে কাতার সোজা করে নিলাম। এরপর রসূলুল্লাহ এসে নামাজের স্থানে দাঁড়ালেন। তখনও তাকবীর বলা হয় নি। ইতোমধ্যে তার কিছু স্মরণ হলে তিনি আমাদেরকে বললেন, তোমরা নিজ-নিজ স্থানে অপেক্ষা করতে থাক। এ কথা বলে তিনি ফিরে গেলেন। আমরা তার পুনরায় না আসা পর্যন্ত দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে থাকলাম। ইতোমধ্যে তিনি গোসল করে আসলেন। তখনও তার মাথা থেকে পানি ফোঁটা ফোঁটা ঝরে পড়ছিল। এবার তিনি তাকবীরে তাহরীমা বলে আমাদের নামাজ আদায় করালেন। (মুসলিম ৬০৫)

والله أعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 − eleven =