আমি রুকুর দিকে যাচ্ছিলাম আর ইমাম সাহেব রুকু থেকে উঠছিলেন…

জিজ্ঞাসা–১১৭২: আমি নামাজে এমন অবস্থায় ইমামের সঙ্গে শরিক হয়েছি যে, আমি রুকুতে পৌঁছার আগে আগে ইমাম সাহেব রুকু থেকে উঠে যান। অর্থাৎ রুকুর দিকে যাচ্ছিলাম আর ইমাম সাহেব রুকু থেকে উঠছিলেন) এ অবস্থায় আমি রাকাআত পেয়েছে বলে গণ্য করা যাবে কি?–আব্দুল আহাদ।

জবাব: কোন ব্যক্তি যদি ইমাম সাহেবকে রুকু অবস্থায় পেয়ে সাথে সাথে দাঁড়ানো অবস্থায় তাকবীর বলে রুকুতে শরীক হয়ে যায়, তাকে সেই রাকাত পেয়েছে বলে গণ্য করা যাবে।

যায়েদ ইবনু সাবিত রাযি. বলেন,

من أدرك الركعة قبل أن يرفع الإمام رأسه فقد أدرك الركعة

যে ব্যক্তি ইমামকে তার মাথা উত্তোলন ক্রার আগে রুকুতে পেয়েছে, সে ওই রাকাত পেয়েছে। (আলমুগনী ১/২৯৮)

তবে ইমাম সাহেব রুকু থেকে উঠা অবস্থায় যদি মুকতাদী রুকুতে যায় অর্থাৎ প্রশ্ন উল্লিখিত অবস্থায় রুকু পেয়েছে কী পায়নি; এব্যাপারে ফুকাহায়ে কেরামের দুই ধরনের উক্তি পাওয়া যায়। আহসানুল ফতওয়াসহ অনেক ফতওয়ার কিতাবে রুকু পাওয়ার মতকে প্রধান্য দেয়া হয়েছে। (আহসানুল ফতওয়া ৩/২৮৮)

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
শায়েখ উমায়ের কোব্বাদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × three =