ইমামের হাদিয়া বাবদ চাঁদা উঠিয়ে মসজিদ ফাণ্ডে জমা করা

জিজ্ঞাসা–১৪৭৪: আমি এক মসজিদের ইমাম সাহেব। রমজান মাসে মসজিদে সুরা তারাবিহ পড়াই। মসজিদ কমিটি মুসল্লীদের থেকে তারাবিহর চাঁদা বাবত যে টাকা উঠায়, সে টাকা মসজিদের যে কোনো কাজে ব্যবহার করতে পারবে কি না? উল্লেখ্য, প্রতি বছর তারাবিহর চাঁদা বাবত প্রায় ১৩/১৪ হাজার টাকা উঠে। মুসল্লীদের থেকে চাঁদা নেওয়ার সময় বলা হয় যে, এটা ইমাম সাহেব যে তারাবিহর নামাজ পড়ায় সে জন্য। পরবর্তীতে মসজিদ কমিটি সেখান থেকে মাত্র ৬ হাজার টাকা তারাবিহ বাবত দিয়ে বাকি টাকা মসজিদ ফান্ডে রেখে দেয়। মসজিদ কমিটির জন্য কি এমন করা জায়েজ আছে? জানালে খুব কৃতজ্ঞ থাকব।–abdul kader

জবাব: সূরা তারাবী পড়িয়ে হাদিয়া নেয়া জায়েয। সুতরাং উক্ত টাকা ইমামের হক। আর যেহেতু ইমামকে দেয়া হবে বলে উক্ত টাকা তোলা হচ্ছে, সুতরাং এটা তাকেই দিতে হবে। এই টাকা মসজিদ ফাণ্ডে জমা করা জায়েয হবে না। হাদিস শরিফে এসেছে, রাসূলুল্লাহ বলেছেন,

وَمَنْ غَشَّنَا ، فَلَيْسَ مِنَّا

যে আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করে, সে আমাদের দলভুক্ত নয়। (মুসলিম ১০২)

والله أعلم بالصواب

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten − three =