এক মসজিদের জন্য মান্নত করে অন্য মসজিদে দিয়ে দিলে হবে কি?

জিজ্ঞাসা–১০০৮: যদি কেউ মান্নত করে যে, যদি আমার অমুক কাজটি হয় তাহলে আমি অমুক মসজিদে টাকা দিব। তারপর সে অন্য মসজিদে টাকা দিল, এর দ্বারা তার মান্নত আদায় হয়ে যাবে কি?–শাব্বির।

জবাব: হ্যাঁ, যে কোনো মসজিদে দিলে আদায় হয়ে যাবে। হাদিস শরিফে এসেছে, রাসুলুল্লাহ বলেছেন,

مَنْ نَذَرَ أَنْ يُطِيعَ اللَّهَ فَلْيُطِعْهُ ، وَمَنْ نَذَرَ أَنْ يَعْصِيَهُ فَلَا يَعْصِهِ

যে ব্যক্তি আল্লাহ তাআলার আনুগত্য করার মান্নত করে সে যেন (তা পূরণ করে) তাঁর আনুগত্য করে । আর যে অবাধ্যতার কোনো বিষয়ে মান্নত করে সে যেন তাঁর অবাধ্যতা না করে। (সহীহ বুখারী ৬৬৯৬)

ফাতাওয়া হিন্দিয়া (২/৭২)-এ এসেছে,

رجل قال : مالي صدقة على فقراء مكة إن فعلت كذا فحنث وتصدق على فقراء بلخ أو بلدة أخرى جاز ويخرج عن النذر

‘এক ব্যক্তি বলল, আমি যদি অমুক কাজ করি তাহলে মক্কার ফকিরদের সাদকা করব। তারপর সে তার কথা রাখে নি; বরং সে বলখের কিংবা অন্য কোনো শহরের ফকিরদের সাদকা করে দিল। তবে এটা জায়েয হবে এবং সে মান্নত থেকে মুক্তি পেয়ে যাবে।’

উল্লেখ্য, মান্নত শরিয়তে নিষেধ নয় বটে; তবে পসন্দনীয়ও নয়। শরিয়ত উদ্বুদ্ধ করে নফল সদকার প্রতি; মান্নতের প্রতি নয়।

হাদিস শরিফে এসেছে, আব্দুল্লাহ ইবনে উমর রাযি. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেছেন,

أَخَذَ رَسُولُ اللَّهِ يَوْمًا يَنْهَانَا عَنِ النَّذْرِ وَيَقُولُ ‏‏ إِنَّهُ لاَ يَرُدُّ شَيْئًا وَإِنَّمَا يُسْتَخْرَجُ بِهِ مِنَ الشَّحِيحِ

রাসূলুল্লাহ একদিন আমাদের মান্নত করতে নিষেধ করেছেন। আর বলেছেন, মান্নত কোনো কিছুকে ফেরাতে পারে না। তবে মান্নতের মাধ্যমে কৃপণ ব্যক্তির সম্পদ বের করা হয়। (মুসলিম ৪৩২৫)
পক্ষান্তরে দান-সদকা সম্পর্কে রাসূলুল্লাহ বলেছেন,
بَاكِرُوا بِالصَّدَقَةِ ؛ فَإِنَّ الْبَلَاءَ لَا يَتَخَطَّى الصَّدَقَةَ
তোমরা দানের ব্যাপারে তাড়াতাড়ি করবে। কেননা বিপদাপদ তাকে অতিক্রম করতে পারে না। (বাইহাকী ৭৩৭৪)
والله اعلم بالصواب

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × one =