ঘুমন্ত অবস্থায় তালাক দিলে পতিত হবে কি?

জিজ্ঞাসা–১০৩৫: আমার ঘুমের ভিতরে কথা বলার অভ্যাস আছে। এটা আমার রোগ। আমি ঘুমের ভেতরে প্রায় নাকি তালাক তালাক বলে উঠি। কিন্তু জাগ্রত হওয়ার পর কিছুই মনে থাকে না। এখন টেনশনে আছি যে, এর কারণে আমার দাম্পত্যজীবনে কোনো ক্ষতি হচ্ছে কিনা? অর্থাৎ আমার স্ত্রীর উপর তালাক হয়ে গিয়েছে কিনা?–নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক।

জবাব: এ বিষয়ে আরব বিশ্বের সর্বোচ্চ ফতোয়া কমিটিকে জিজ্ঞাসা করা হলে তাঁরা উত্তর দিয়েছেন,

إذا طلق الرجل زوجته وهو نائم : فإن طلاقه لا يقع ؛ لعموم قوله -ﷺ -:  رفع القلم عن ثلاثة : عن النائم حتى يستيقظ ، وعن الصبي حتى يبلغ ، وعن المعتوه حتى يعقل.  رواه الترمذي ، وابن ماجه ، والحاكم عن علي بن أبي طالب رضي الله عنه

‘যদি কোনো ব্যক্তি স্ত্রীকে ঘুমন্ত অবস্থায় তালাক দেয় তাহলে তা পতিত হবে না। কেননা, রাসূলুল্লাহ ﷺ বলেছেন, তিন শ্রেণীর মানুষ থেকে কলম উঠিয়ে নেওয়া হয়েছে; ঘুমন্ত ব্যক্তি জাগ্রত হওয়ার আগ পর্যন্ত, নাবালেগ বালেগ হওয়ার আগ পর্যন্ত ও পাগল ব্যক্তি সুস্থ হওয়ার আগ পর্যন্ত। তিরমিযি, ইবনু মাজাহ এবং হাকিম আলী রাযি. সুত্রে হাদিসটি বর্ণনা করেছেন।’ (ফাতাওয়াল লাজনাদ দায়িমা লিল বুহুসিল ইলমিয়্যা ওয়াল ইফতা, ফাতওয়া নং ২০/৩৬)

সুতরাং প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে আপনি ঘুমন্ত অবস্থায় স্ত্রীকে তালাক দিলেও তা পতিত হয় নি।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
শায়েখ উমায়ের কোব্বাদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

7 − four =