ঘুষ দিতে বাধ্য হলে করণীয়

জিজ্ঞাসা–৫৭৭: ঘুষ না দেয়ার কারণে ফাইল আটকে আছে, কী করব?–md hanif

জবাব: নিঃসন্দেহে ঘুষের লেনদেন হারাম ও কবিরা গুনাহ। আব্দুল্লাহ ইবন আমর রাযি. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন,

لَعَنَ رَسُولُ اللَّهِ الرَّاشِي وَالْمُرْتَشِي 

রাসূলুল্লাহ ﷺ ঘুষদাতা ও ঘুষগ্রহীতাকে লানত করেছেন। (আবুদাউদ ৩৫৮০, আহমাদ ৬৭৯১)

ঘুষ গ্রহণ করা সর্বাবস্থায় হারাম। আর ঘুষ দেয়া সাধারণ অবস্থায় হারাম। পক্ষান্তরে কোনো ব্যক্তি যদি নিজের হক আদায় করতে, কিংবা জুলুম থেকে বাঁচার উদ্দেশ্যে ঘুষ দিতে বাধ্য হয় তাহলে তার জন্য ঘুষ দেয়া জায়েয আছে। খাত্তাবী রহ. বলেন,

إذا أَعطى ليتوصل به إلى حقه ، أو يدفع عن نفسه ظلماً : فإنه غير داخل في هذا الوعيد

‘কোনো ব্যক্তি যদি নিজের অধিকার আদায় করতে গিয়ে কিংবা নিজের উপর জুলুম প্রতিহত করতে গিয়ে ঘুষ দেয় তাহলে সে উক্ত সতর্কবাণীর (লানত) অন্তর্ভুক্ত হবে না।’ (মাআলিমুস সুনান ৫/২০৭)

তবে একান্ত বাধ্য না হলে ঘুষ দেয়া উচিত নয়। কেননা, এক্ষেত্রে কঠোরতা অবলম্বন করা না হলে সমাজে ঘুষ ও দুর্নীতি বেপরোয়া হয়ে উঠবে। সুতরাং আপনার জন্য প্রথমত ঘুষ ছাড়া কাজ সম্পাদন করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা ওয়াজিব। এরপরেও যদি কাজ না হয় তাহলে নিজের হক আদায়ের জন্য ঘুষ দেয়া আপনার জন্য জায়েয হবে।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + fifteen =