টেস্টটিউব বেবি নেয়া যাবে কি?

জিজ্ঞাসা–৬০৪: আমার ছয় বছর হয়েছে বিয়ে হয়েছে। বেবি হয় না। ডাক্তার বলে, আমার হাজব্যান্ডের শুক্রাণুগুলো দুর্বল। আর আমার ডিম্বাণুগুলো ফোটে না। তাই আমাদের বেবি হচ্ছে না। এখন ডাক্তার বলছে, টেস্ট টিউবের মাধ্যমে দুইজনের শুক্রাণু ও ডিম্বাণুগুলো নিয়ে টিউবের মাধ্যমে প্রসেস করে ইনজেকশন দিয়ে পুশ করে দিবে। এটা ছাড়া আর আমাদের বেবি হবে না। এখন এই প্রসেসে বেবি নিলে গুনাহ হবে কি?–Taznin

জবাব: যদি স্বামী স্ত্রীর বীর্য নিয়ে টেস্ট টিউবে রেখে মিলন ঘটিয়ে যথাসময়ে তা নিজ স্ত্রীর গর্ভাশয়ে স্থাপন করা হয় অথবা স্বামীর বীর্য সিরিঞ্জের সাহায্যে নিজ স্ত্রীর গর্ভাশয়ে বা ডিম্ববাহী নালীতে বিশেষ পদ্ধতিতে রাখা হয়; যেমনটি আপনি বলেছেন এবং যাকে মেডিকেলের পরিভাষায় আইইউআই (ইন্ট্রা ইউটেরাইন ইনসেমিনেশন) বা আইভিএফ (ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন) বলা হয়–তাহলে শরিয়ত একে অবৈধ মনে করে না। তবে এক্ষেত্রে দারুল উলুম করাচির (১/৬/১৪৩১ হি. ১৭/১২৩৪,৬৫/৬৭৯) ফতোয়া মতে নিন্মোক্ত বিষয়গুলোর প্রতি অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে।

টেস্ট টিউব পদ্ধতি বন্ধ্যাত্ব চিকিৎসার একটি পদ্ধতি হিসেবে গ্রহণ করার সুযোগ আছে। তবে এটি প্রথম বা একমাত্র পদ্ধতি নয়। বরং প্রথমে সন্তান জন্ম দেওয়ার সকল স্বাভাবিক চেষ্টা সম্পন্ন করতে হবে। এরপর যদি বন্ধ্যাত্ব চিকিৎসার অন্য সব পদ্ধতি ব্যর্থ হয় এবং আর কোনো উপায়ান্তর না থাকে তাহলে সর্ব শেষ চিকিৎসা হিসেবে এ পদ্ধতি গ্রহণ করার সুযোগ নিতে পারবে।

এ পদ্ধতি গ্রহণ করার প্রতিটি ধাপে সতর ও হিজাবের প্রতি সর্বোচ্চ সচেষ্ট থাকতে হবে। যেমন, স্ত্রীর কাছ থেকে ডিম্বানু সংগ্রহ করা এবং স্ত্রীর জরায়ুতে ভ্রূণ সংস্থাপন করা; এ কাজগুলো মহিলা ডাক্তারকে দিয়ে করাতে হবে।

 পুরুষ ডাক্তার সিরিঞ্জের মাধ্যমে স্বামীর কাছ থেকে বীর্য সংগ্রহ করবে। যদি তা সম্ভব না হয়, তাহলে হস্তমৈথুনের পরিবর্তে নিজ স্ত্রীর সঙ্গে আযলের মাধ্যমে তা সংগ্রহ করবে।

যাতে করে অপরের বীর্যের সঙ্গে কোনোভাবে কোনো প্রকার গড়মিল না হয়; সন্তান তার পিতৃ পরিচয় লাভের উদ্দেশ্যে অবশ্যই এর প্রতি পরিপূর্ণ খেয়াল রাখতে হবে।

যেহেতু বন্ধ্যাত্বের কারণে অনেক সময় তালাকের মত দুর্ঘটনা ঘটে থাকে, তাই জরুরতের প্রতি লক্ষ করে উপায়ান্তর না থাকার পরিস্থিতিতে টেস্টটিউব বেবি নেয়ার চিকিৎসা পদ্ধতি অবলম্বনের অনুমতি দেয়া হয়েছে। সুতরাং কেবল বিলাসিতার উদ্দেশ্যে অর্থাৎ, ছেলে চাই-মেয়ে নয় কিংবা মেয়ে চাই- ছেলে নয়; এ জাতীয় উদ্দেশ্যে এই পদ্ধতি গ্রহণ করা জায়েয হবে না।

আল্লাহ তাআলা বলেন,

قُل لِّلْمُؤْمِنِينَ يَغُضُّوا مِنْ أَبْصَارِهِمْ وَيَحْفَظُوا فُرُوجَهُمْ ۚ ذَٰلِكَ أَزْكَىٰ لَهُمْ ۗإِنَّ اللَّهَ خَبِيرٌ بِمَا يَصْنَعُونَ 

‘হে নবী! আপনি মুমিনদেরকে বলে দিন, তারা যেন নিজেদের দৃষ্টি অবনত রাখে এবং লজ্জাস্থানের হেফাজত করে। এতে তাদের জন্য রয়েছে পবিত্রতা। তারা যা করে মহান আল্লাহ তা সম্পর্কে সম্যক অবগত।’ (সূরা নূর ৩০)

মিশকাতগ্রন্থে রয়েছে, রুয়াইফি’ ইবন সাবিত আনসারী রাযি. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ হুনাইনের দিন বলেছেন,

لَا يَحِلُّ لِامْرِئٍ يُؤْمِنُ بِاللَّهِ وَالْيَوْمِ الْآخِرِ أَنْ يَسْقِيَ مَاءَهُ زَرْعَ غَيْرِهِ

যে ব্যক্তি আল্লাহ এবং শেষ দিনের উপর ঈমান রাখে, তার জন্য বৈধ নয় অন্যের ফসলে নিজের পানি সেচন করা। (আবু দাউদ ২১৫৮)

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
শায়েখ উমায়ের কোব্বাদী
আরো পড়ুন–
ডেলিভারির জন্য অমুসলিম মহিলা ডাক্তারের কাছে যাওয়া যাবে কি?
মহিলা ডাক্তার পুরুষ রোগীর চিকিৎসা করা
সন্তান লাভের আমল ও দোয়া
গর্ভবতী মায়ের আমল ও দোয়া
জন্মনিয়ন্ত্রণ ইসলামের দৃষ্টিতে কি?
স্বামী-স্ত্রী পরস্পরের লজ্জাস্থানে মুখ লাগানোর হুকুম
সহবাসের সঠিক নিয়ম এবং স্ত্রীর গোপনাঙ্গের দিকে তাকানোর হুকুম
স্বামী যদি স্ত্রীর চাহিদা পূরণ করতে ব্যর্থ হয় তাহলে তার হুকুম কী?
গর্ভাবস্থায় সহবাসের হুকুম কি?
সন্তান লাভের আনন্দে মিষ্টি বিতরণ করা যাবে কি?
সুস্বাস্থ্যের জন্য আমল ও দোয়া