পানি ব্যবহার না করে শুধু টিসু ব্যবহার করা

জিজ্ঞাসা–৩২০: পস্রাব করার পর পানি থাকা সত্তেও যদি শধু টিসু ব্যাবহার করে তাহলে কি গুনাহ হবে? আর উত্তম পন্থা কী?– ফারহান: [email protected]

জবাব: টিসু দ্বারা পুরোপুরি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অর্জন হলে টিসু ব্যবহার করার পর পানি ব্যবহার করা জরুরী নয়। তবে প্রথমে ঢিলা বা টিসু ব্যবহার করে এরপর পানি ব্যবহার করা উত্তম।। কেউ যদি টিসু ব্যবহার করার পর পানি ব্যবহার না করে তাহলে তার কোন গুনাহ হবে না। (ফাতহুল কাদীর ১/১৮৯)

উল্লেখ্য, যারা উত্তমরূপে পবিত্রতা অর্জন করাকে পছন্দ করে তাদের প্রশংসা করে আল্লাহ তাআলা বলেন, وفيه رجال يحبون ان يتطهروا والله يحب المطهرين সেখানে রয়েছে এমন লোক, যারা পবিত্রতাকে ভালবাসে। আর আল্লাহ পবিত্র লোকদের ভালবাসেন। (সূরা তাওবা: ১০৮)

কাযী ইয়ায রহ. বলেন-

إن الاستنجاء بالماء أفضل من الاقتصار على الأحجار، وهو مذهب الأنصار، وبه أثنى الله عليهم بالطهارة وأنه يحب المتطهرين.

শুধু ঢিলা ব্যবহারে সীমাবদ্ধ না থেকে ঢিলার পর পানি ব্যবহার করা উত্তম। এটাই আনসারী সাহাবীগণের মাযহাব। আর এ কারণেই আল্লাহ তাআলা কুবাবাসীর প্রশংসা করেছেন এবং বলেছেন, তিনি অধিকতর পবিত্রতা অর্জনকারীর লোকদের পসন্দ করেন। (ইকমালুল মু‘লিম ২/৭৮)

সৌদি আরবের প্রসিদ্ধ আলেম মসজিদে নববীর ওয়ায়েয শায়খ আবু বকর জাবের জাযায়েরী রহ. বলেন,

كانوا يجمعون في الاستنجاء بين الحجارة والماء. فأثنى الله تعالى عليهم بذلك.

কুবাবাসীগণ ঢিলা ও পানি উভয়টা দ্বারা ইস্তিঞ্জা করতেন। তাই আল্লাহ তাদের প্রশংসা করেছেন। (আইসারুত তাফাসীর ১/৭০৬)

সুতরাং ঢিলা/টিসু এবং পানি; উভয়টাই ব্যবহার করা উচিত।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী

আরো পড়ুন:

 ইস্তিঞ্জার (পেশাব-পায়খানার) নিয়ম কি?
 শিশুর পেশাব নাপাক কিনা?
 পেশাবের শুকিয়ে যাওয়া স্থানে ভেজা পা পড়লে তার হুকুম কি?
 কয় দিক ফিরে পেশাব করা নিষেধ?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × 5 =