পেশাব মুছে ফেলার পর সেখানে ভেজা পা পড়লে এবং মোছার ন্যাকড়া তিনবার ধুয়ে নিলে…

জিজ্ঞাসা–৪৬৩: পেশাবের স্থান যদি পরিষ্কার করে মুছে, তারপর ঐ নেকরা ৩বার বিসমিল্লাহ বলে ধুয়ে নিই, তাহলেও কি ঐ স্থানে ভেজা পা পড়লে,নাপাকি লেগে যাবে? ঐ নেকরা কি আর ব্যবহার করা যাবে?–নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক।

জবাব:

এক- ভেজা পায়ে ঐ জায়গায় চলাচলের দরুণ পা নাপাক হবে না। কারণ মেঝেটি মোছার পর তা শুকিয়ে যাওয়া বা নাপাকির প্রভাব নিঃশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ার দ্বারা তা পাক হয়ে যায়। (খুলাসাতুল ফাতাওয়া ১/৪২)

দুই- ন্যাকড়াটি তিনবার ধোয়ার সময় যদি প্রত্যেকবার ভালো করে চাপ দিয়ে নিংড়িয়ে থাকেন তাহলে ওই ন্যাকড়া প্যাক হয়ে যাবে এবং পুনরায় ব্যবহার করা যাবে। (বেহেশতি জিওর, উর্দূ ২/৭৭)

উল্লেখ্য, তিনবারের কথা বলা হয়, যাতে সন্দেহ না থাকে। অন্যথায় যদি প্রবাহমান পানি যেমন, নদী, পুকুরে বা টেপের পানিতে এত বেশি করে ধোয়া হয়, যাতে নাপাকি দূর হওয়ার ব্যাপারে প্রবল ধারণা হয়ে যায় তাহলে তা পাক হয়ে যায়। এক্ষেত্রে তিনবার নিংড়িয়ে ধোয়া জরুরি নয়। (রদ্দুল মুহতার ১/৩৩৩ আলবাহরুর রায়েক ১/২৩৭ শরহুল মুনইয়া ১৮৩)

হাদিস শরিফে এসেছে,আসমা রাযি. থেকে বর্ণিত,

 أَنَّ النَّبِيَّ  قَالَ -فِي دَمِ الْحَيْضِ يُصِيبُ الثَّوْبَ-: «تَحُتُّهُ، ثُمَّ تَقْرُصُهُ بِالْمَاءِ، ثُمَّ تَنْضَحُهُ، ثُمَّ تُصَلِّي فِيهِ

হায়িযের রক্ত কাপড়ে লেগে যাওয়া প্রসঙ্গে রাসূলুল্লাহ বলেছেন, ‘পানি দিয়ে ঘষা দিবে তারপর পানি দ্বারা ভালোভাবে ধৌত করবে। অতঃপর নামায আদায় করবে।’ (বুখারী ২২৭,৩০৭)

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী