ফরজ-হজ্ব না করে মারা গেছে এখন তার জন্য বদলি-হজ্ব করলে হবে কিনা?

জিজ্ঞাসা–২০৬: আমার বাবার উপর হজ্ব ফরজ ছিল। কিন্তু তিনি জীবদ্দশায় হজ্ব করেন নি। এ ব্যাপারে কাউকে কিছু বলেও যান নি। এখন আমি তার বদলি হজ্ব করতে চাই। এটা করা যাবে কিনা এবং তিনি মাফ পাবেন কিনা?–আসাদ

জবাব: যেহেতু আপনার বাবা অসিয়ত করে যান নি , তাই তার পক্ষ থেকে আপনার কিংবা অন্য ওয়ারিশদের বদলী হজ্ব করা বা করানো জরুরি নয়। তবে আপনি কোনো বা অন্য কেউ স্বেচ্ছায় তার পক্ষ থেকে বদলী হজ্ব করলে এর দ্বারা আপনার বাবার ফরয হজ্ব আদায় হয়ে যাওয়ার আশা করা যায়।

হযরত বুরাইদাহ রাযি. বলেন, জনৈক মহিলা রাসূলুল্লাহ ﷺ-কে জিজ্ঞাসা করলেন, ‘ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমার মা ইন্তিকাল করেছেন। তিনি হজ্ব করেননি। আমি কি তার পক্ষ থেকে হজ্ব করতে পারি?’ রাসূলুল্লাহ ﷺ বললেন, ‘হ্যাঁ, তুমি তার পক্ষ থেকে হজ্ব করো।’ (সহীহ মুসলিম ১/৩৬২)

হযরত আতা রাহ. বলেছেন, ‘অসিয়ত না করলেও মৃতের পক্ষ থেকে হজ্ব করানো যাবে।’

উল্লেখ্য, উপরোক্ত ক্ষেত্রে ওয়ারিশগণ যদি মাইয়্যেতের অবণ্টিত পরিত্যক্ত সম্পদ দ্বারা বদলী হজ্ব করাতে চান তাহলে দুটি শর্ত অবশ্যপালনীয় : ক) বদলী হজ্বের অসিয়ত না করার কারণে মৃতের সকল সম্পদের বর্তমান মালিক যেহেতু ওয়ারিশগণ তাই উক্ত সম্পদ দ্বারা বদলী হজ্ব করাতে হলে সকল ওয়ারিশের স্বতঃস্ফূর্ত সম্মতি থাকতে হবে। খ) ওয়ারিশদের কেউ যদি নাবালেগ হয় কিংবা কোনো ওয়ারিশের যদি সম্মতি না থাকে তাহলে তার অংশ থেকে বদলী হজ্বের জন্য কিছুই নেওয়া যাবে না। (মানাসিক ৪৩৬; আদ্দুররুল মুখতার ২/৫৯৯; গুনইয়াতুন নাসিক ৩২২, ৩২৮)

والله اعلم بالصواب

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four + five =