ফাসেকের ইমামতি

জিজ্ঞাসা–৬৩৩: আমাদের গ্রামের একজন ব্যক্তি আছে যিনি স্ত্রীর রোজগার খায় এবং দাঁড়ি কেটে ফেলে মসজিদের ইমাম প্রায় সময় বাড়িতে চলে যায়। তখন সেই ব্যক্তি নিজের ক্ষমতার জোরে নামাজ পড়াতে দাঁড়ায়। আমরা কয়েকজন যুবক ছাড়া বাকি সব মুরব্বি কিছুই বলে না, আর মুরব্বিরা কোন বিষয়ে প্রতিবাদও করে না। ওই ব্যক্তির পেছনে কি নামাজ হবে?– ইকরামুল হক।

জবাব: একজন ইমাম যদি দাঁড়ি এক মুষ্ঠির কম রাখেন তাহলে তিনি ফাসেক। এ জাতীয় ইমাম নিঃসন্দেহে ইমামতির যোগ্যতা রাখে না, বরং তার পেছনে নামাজ আদায় করা মাকরূহে তাহরীমী। ফিকাহর কিতাবসমূহে এসেছে, إن إمامةالفاسق مكروه تحريما ‘ফাসিক ব্যক্তির ইমামতি মাকরূহে তাহরীমী।’ (তাহত্বাভী পৃ: ২৪৪)

বিস্তারিত জানার জন্য পড়ুন জিজ্ঞাসা নং–১৬২

আর দাঁড়ির বিধান সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হলে পড়ুন জিজ্ঞাসা নং–১৪২।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 − 2 =