বাচ্চাদের কপালে শখ করে টিপ দিলে গুনাহ হবে কি?

জিজ্ঞাসা–২৩৯: ছেলে-বাচ্চাদের কপালে শখ করে টিপ দিলে গুনাহ হবে কি না?— মাহাবুবুর রাহমান মিয়াজী: [email protected]

জবাব: কপালে টিপ দেয়া বিধর্মীদের প্রথা। উপরন্তু এটা বিশেষত হিন্দু ধর্মের প্রতীক। হিন্দু ধর্মীয় তন্ত্রসাধনায় কপালকে ইষ্টের প্রতীক বলে মনে করা হয়৷ এই টিপ লাগানোর সময় তারা তাদের ইষ্টদেবের স্মরণ করে থাকে৷

সুতরাং নিছক শখের বশেও এটি ছেলে-মেয়ে, বড়-ছোট কেউ লাগাতে পারবে না। কেননা, হাদীস শরীফে এসেছে-مَنْ تَشَبَّهَ بِقَوْمٍ فَهُوَ مِنْهُمْ‘যে ব্যক্তি যে সম্প্রদায়ের সাথে সামঞ্জস্য রাখে সে তাদের দলভুক্ত।’ (সুনানে আবু দাউদ ২/৫৫৯)

অনেকে শিশুদের কপালে টিপ লাগায় বদ নজর রোধ করার জন্য। বস্তুতঃ  এটি বদ নজর রোধ করে না।

শিশুকে বদ নজর ইত্যাদি থেকে রক্ষা করার জন্য কী করতে হবে রাসূলুল্লাহ ﷺতা শিক্ষা দিয়েছেন।

হাদীসে এসেছে, রাসূলুল্লাহ ﷺ হাসান ও হুসাইন রা. এর জন্য এই দোয়া পড়ে আল্লাহর আশ্রয় কামনা করতেন-

أُعِيْذُكُمَا بِكَلِمَاتِ اللهِ التَّامَّةِ مِنْ كُلِّ شَيْطَانٍ وَّهَامَّةٍ وَّمِنْ كُلِّ عَيْنٍ لاَمَّةٍ.

অর্থ : সকল শয়তান, কীটপতঙ্গ ও বদনজর হতে তোমাদেরকে আল্লাহর পূর্ণাঙ্গ কালিমাসমূহের আশ্রয়ে দিচ্ছি।

(দোয়াটি এক সন্তানের জন্য পড়লে ‘উয়ীযুকা’, দুইজনের জন্য ‘উয়ীযুকুমা’ আর দুইয়ের অধিক হলে ‘উয়ীযুকুম’ বলতে হবে। ) (বুখারী ৩৩৭১)

পাশাপাশি আয়াতুল কুরসী, তিন কুল ও হাদীসের অন্যান্য  দোয়াও এক্ষেত্র প্রয়োগ করা যেতে পারে।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six − 3 =