বাচ্চার চুল যদি সপ্তম দিনে কাটা সম্ভব না হয় তাহলে করণীয় কী?

জিজ্ঞাসা–৪০৫: আমার মেয়ের বয়স ১২ এবং দুই জমজ পুত্রের বয়স ৪ বছর। আমার তিনটা বাচ্চাই ৭/৫ সপ্তাহের প্রিম্যাচিউর ছিল ফলে ওরা ওজনে অনেক ছোট ছিল। মেয়ে মাত্র ১.৫কেজি আর ছেলেরা যথাক্রমে ২.৫ আর ২.২ কেজি। তাই ওদের ডক্টর বারণ করেছিল কমপক্ষে একবছরের আগে চুল কাটতে। কারণ ওদের মাথা এত নরম ছিল যে, ব্রেইনের নড়াচড়াও স্পষ্ট বোঝা যেত। ফলে জন্মের পর চুল কেটে ওজন করে অর্থ দান করার যে বিধান তা পালন করা হয় নি আমার অজ্ঞতার জন্য। এ সম্পর্কে আল্লাহর কোনো নির্দিষ্ট বিধান আছে তাই জানতাম না। আমি যথেষ্ট লজ্জিত। আমার মেয়ের চুল একবছর পর কাটা হয়েছিল, কিন্তু ছেলেদের চুল কাটা হয় নি তবে নিয়মিত ছেটে দেয়া হয় ফলে এখনতো আর জন্মের চুল মাথায় নাই। এখন আমার কি করণীয়?–তাহসিনা খান।
জবাব: নবজাতক সন্তানের জন্মের পর সপ্তম দিনে মাথা সপ্তম দিন মাথা মুণ্ডন করা এবং চুলের ওজন পরিমাণ রুপা বা তৎমূল্য সদকা করা স্বতন্ত্র দুটি মুস্তাহাব আমল।

হাদীস শরিফে এসেছে, আয়েশা রাযি. বলেন,

عَقَّ رَسُولُ اللَّهِ عَنِ الْحَسَنِ وَالْحُسَيْنِ يَوْمَ السَّابِعِ وَسَمَّاهُمَا وَأَمَرَ أَنْ يُمَاطَ عَنْ رَأْسِهِمَا الأَذَى.

‘(জন্মের) সপ্তম দিনে রাসূলুল্লাহ   হাসান ও হুসাইনের আকীকা দিয়েছেন, তাঁদের নাম রেখেছেন এবং তাঁদের মাথা থেকে কষ্ট (চুল) দূর করেছেন।’ (বাইহাকী ১৯০৫৫ সহীহ ইবন হিব্বান  ৫৩১১)

কিন্তু কোনো কারণবশত বাচ্চার চুল যদি সপ্তম দিনে কাটা সম্ভব না হয় সেক্ষেত্রে সপ্তম দিনের চুলের ওযন অনুমানে রূপা বা স্বর্ণ বা তৎমূল্য সদকা করে দিবে। সুতরাং আপনি এটা করতে পারেন।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী
আরো পড়ুন–
নবজাতকের ক্ষেত্রে ভুল-শুদ্ধ কিছু রীতি
শিশু ওযু ছাড়াই কোরআন ধরতে পারবে কি?সন্তান লাভের আনন্দে মিষ্টি বিতরণ করা যাবে কি?শিশুদের কপালে কালো টিপ দেওয়া যাবে কি না?নাবালেগ শিশু-কিশোরের সম্পদে কি যাকাত ফরয হয়?

ন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − 6 =