বিবাহ অনুষ্ঠানের ছবি/ভিডিও করে আয় করার বিধান

জিজ্ঞাসা–১৪৮৫: বিবাহ অনুষ্ঠানের ছবি তুলে/ভিডিও করে আয়কৃত টাকা হালাল কিনা?–হাসান।

জবাব: বিবাহ অনুষ্ঠানের ছবি তুলে কিংবা ভিডিও করে আয়কৃত টাকা হালাল নয়। আরব বিশ্বের সর্বোচ্চ ফতোয়া কমিটিকে জিজ্ঞাসা করা হলে তাঁরা উত্তর দিয়েছেন,

تصوير ذوات الأرواح حرام والكسب حرام

প্রাণীর ছবি বানানো হারাম এবং এর উপার্জনও হারাম। (ফাতাওয়াল লাজনাদ দায়িমা লিল বুহুসিল ইলমিয়্যা ওয়াল ইফতা, ফাতওয়া নং ৬৪০২)

সহিহ হাদিসে এসেছে, আব্দুল্লাহ ইবন আব্বাস রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ বলেছেন,

كُلُّ مُصَوِّرٍ فِي النَّارِ يُجْعَلُ لَهُ بِكُلِّ صُورَةٍ صَوَّرَهَا نَفْسٌ فَيُعَذِِّبُهُ فِي جَهَنَّمَ

‘প্রত্যেক ছবিনির্মাতা জাহান্নামে যাবে, তার নির্মিত প্রতিটি ছবি পরিবর্তে একটি করে প্রাণ সৃষ্টি করা হবে, যা তাকে জাহান্নামে শাস্তি দিতে থাকবে।’ (বুখারী ২২২৫, ৫৯৬৩, মুসলিম ৫৬৬২)

তবে কেবল বাধ্যগত কারণে যেমন–জনগুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্যে, রেকর্ড রাখার স্বার্থে, অপরাধীদের সন্ধানের জন্য ও  অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাজে ব্যবহারের জন্য ছবি তোলা এবং এ থেকে অর্জিত আয়ের অনুমতি রয়েছে।

সুতরাং কেবল এমন জিনিসগুলির ছবি নিয়ে কাজ করতে পারেন যা হারাম নয় বা তিনি অন্য কোনও ব্যবসার চেষ্টা করতে পারেন। যে ব্যক্তি আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য কোন জিনিস ত্যাগ করে, আল্লাহ তাকে আরও ভাল কিছু দিয়ে ক্ষতিপূরণ দেবেন। আল্লাহ তাআলা বলেন,

وَمَنْ يَتَّقِ اللَّهَ يَجْعَلْ لَهُ مَخْرَجًا. وَيَرْزُقْهُ مِنْ حَيْثُ لَا يَحْتَسِبُ وَمَنْ يَتَوَكَّلْ عَلَى اللَّهِ فَهُوَ حَسْبُهُ إِنَّ اللَّهَ بَالِغُ أَمْرِهِ قَدْ جَعَلَ اللَّهُ لِكُلِّ شَيْءٍ قَدْرًا

যে আল্লাহকে ভয় করে, আল্লাহ তার জন্য কোনো না কোনো পথ বের করে দেবেন। আর তাকে (এমন উৎস থেকে) রিজিক দেবেন যা সে ধারণাও করতে পারবে না। আল্লাহ তাঁর উদ্দেশ্য পূর্ণ করবেনই। নিশ্চয় আল্লাহ প্রত্যেক জিনিসের জন্য একটি সময়সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছেন। (সুরা ত্বালাক ২-৩)

والله أعلم بالصواب