ব্যভিচার থেকে তাওবা করার পরও কি পবিত্র নারী বিয়ে করতে পারবে না?

জিজ্ঞাসা–১০১৩: আসসালামুয়ালাইকুম, কোন পুরুষ যদি কোন ছেলে বা পুরুষের সাথে ব্যভিচার করে এবং তারপর সে যদি তওবা করে তাহলে কি পবিত্র নারী বিয়ে করতে পারবে?–জাবের আহমদ।

জবাব: وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته
প্রিয় প্রশ্নকারী ভাই, কোরআন সুন্নাহয় কোথাও এটা বলা হয় নি যে, কারো পক্ষ থেকে উক্ত নৈতিক অপরাধ সংঘটিত হয়ে যাওয়ার পর যদি সে লজ্জিত হয়ে আন্তরিকতার সঙ্গে তওবা করে, তাহলে সতী-সাধ্বী স্ত্রী পাবে না। বরং অন্যত্র বলা হয়েছে, যদি ব্যভিচারী সত্যিকার অর্থে দৃঢ়চিত্তে তাওবা করে, তাহলে আল্লাহ তাআলা তার তাওবা কবুল করেন এবং তাকে ক্ষমা করে দেন। ব্যভিচারীর পরকালীন শাস্তির ওয়াদার কথা উল্লেখের পর আল্লাহ তাআলা বলেন,
তবে যে তাওবা করে ঈমান আনে এবং সৎকর্ম করে। পরিণামে আল্লাহ তাদের পাপগুলোকে পুণ্য দ্বারা পরিবর্তন করে দেবেন। আল্লাহ অতীব ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু।(সূরা আল ফুরকান ৭০)
আরো বিস্তারিত জানার জন্য পড়ুন-জিজ্ঞাসা নং–৫১৭
 
والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
শায়েখ উমায়ের কোব্বাদী