‘মরণের পর যা হওয়ার হোক’ এ কথা বলা…

জিজ্ঞাসা–৭০১: এক ব্যক্তিকে কোনো এক ব্যাপারে আমি বললাম, মরণকে ভয় কর। সে আমাকে উত্তর দিল, ‘মরণের পর যা হওয়ার হোক, এ নিয়ে তোমার চিন্তা করতে হবে না।’ তার এ জাতীয় কথা বলা কি ঠিক হয়েছে? না হলে তার কী ধরণের গুনাহ হয়েছে?–আবু সায়েম মিলন।

জবাব: উক্ত ব্যক্তির কথাটা জঘন্য পর্যায়ের। কেননা, এ জাতীয় কথার মাঝে আখেরাতকে অস্বীকার করার ইঙ্গিত বিদ্যমান। সুতরাং আশঙ্কা আছে, এর কারণে ঈমান চলে যাওয়ার। সুতরাং সতর্কতা হল, উক্ত ব্যক্তি তার ঈমান ও বিয়ে নবায়ন করে নিবে। আল্লাহ তাআলা বলেন,

وَيْلٌ يَوْمَئِذٍ لِلْمُكَذِّبِينَ * الَّذِينَ يُكَذِّبُونَ بِيَوْمِ الدِّينِ * وَمَا يُكَذِّبُ بِهِ إِلَّا كُلُّ مُعْتَدٍ أَثِيمٍ * إِذَا تُتْلَى عَلَيْهِ آيَاتُنَا قَالَ أَسَاطِيرُ الْأَوَّلِينَ * كَلَّا بَلْ رَانَ عَلَى قُلُوبِهِمْ مَا كَانُوا يَكْسِبُونَ * كَلَّا إِنَّهُمْ عَنْ رَبِّهِمْ يَوْمَئِذٍ لَمَحْجُوبُونَ * ثُمَّ إِنَّهُمْ لَصَالُوا الْجَحِيمِ * ثُمَّ يُقَالُ هَذَا الَّذِي كُنتُمْ بِهِ تُكَذِّبُونَ

সেদিন দুর্ভোগ মিথ্যারোপকারীদের, যারা প্রতিফল দিবসকে মিথ্যারোপ করে। প্রত্যেক সীমালংঘনকারী পাপিষ্ঠই কেবল একে মিথ্যারোপ করে। তার কাছে আমার আয়াতসমূহ পাঠ করা হলে সে বলে, পুরান কালের উপকথা। কখনও না, বরং তারা যা করে, তাই তাদের হৃদয় মরিচা ধরিয়ে দিয়েছে। কখনও না, তারা সেদিন তাদের পালনকর্তার থেকে পর্দার অন্তরালে থাকবে। অতঃপর তারা জাহান্নামে প্রবেশ করবে। এরপর বলা হবে, একেই তো তোমরা মিথ্যারোপ করতে। (সূরা আত-তাতফীফ ১০-১৭)

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী
আরো পড়ুন–

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − two =