মাসবুক ব্যক্তি ভুলে ইমামের সঙ্গে সালাম ফিরিয়ে ফেললে…

জিজ্ঞাসা–৯৪৮: আসসালামু আলাইকুম। অনেক সময় জামাতে নামাজ আদায় করার সময় এক বা একাধিক রাকায়াত শেষ হবার পরে শরীক হই  এবং শেষ রাকায়াত ইমামের সংগে ডান দিকে সালাম ফিরিয়ে ফেলি তার পরে মনে হয় তখন উঠে বাকি নামাজ শেষ করি, আমার জানার বিষয় হল আমাকে কি সিজদায়ে সাহু দিতে হবে কি না?–মোঃ আব্দুল্লাহ।

জবাব: وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

নামাজের জামাতে যে ব্যক্তির শুরুতে এক বা তার অধিক রাকাত ছুটে যায়, তাকে ‘মাসবুক’ বলা হয়। আর মাসবুক ব্যক্তি যদি অসর্তকতা বশত বা ভুলে ইমামের সাথে বা ইমাম সালাম ফেরানোর পূর্বে সালাম ফিরিয়ে ফেলে তাহলে দেরি না করে সাথে সাথে দাঁড়িয়ে যাবে এবং বাকি নামাজ আদায় করবে। সিজদা সাহু করতে হবে না। যদি ইমামের সালাম ফিরানোর পর দেরি করে সালাম ফিরায় তবে সিজদা সাহু করতে হবে। আর যদি উক্ত মাসবুক মনে করে যে, ইমামের সাথে সালাম ফিরাতে হবে তাই সে ইচ্ছা করেই সালাম ফেরায় তাহলে নামাজ নষ্ট হয়ে যাবে। (আল বাহরুর রায়েক ১/৬৬২)

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
শায়েখ উমায়ের কোব্বাদী

ন্তব্য

  1. হুজুর আমার একটা প্রশ্ন. যদি কেও ফজরের নামাযের সুন্নত পড়তে না পারে তাহলে সে কি ফরজ নামাযের পর সুন্নত পড়তে পারবে?

  2. কোনো ব্যক্তি যদি ফজর নামাযের পূর্বে সুন্নত পড়তে না পারে তাহলে এক্ষেত্রে দলীল-প্রমাণের আলোকে শক্তিশালী মত হল, এ ব্যক্তি ফজরের সুন্নত সূর্যোদয়ের পর আদায় করবে। ফরযের পর সূর্যোদয়ের পূর্বে আদায় করবে না। হাদীস শরীফে এসেছে:
    এক. রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়সাল্লাম ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তি ফজরের সুন্নত আদায় করতে পারেনি সে যেন তা সূর্যোদয়ের পর আদায় করে নেয়। (জামে তিরমিযী, হাদীস ৪২৩)
    দুই. স্বয়ং রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কখনো ফজরের সুন্নত ছুটে গেলে তিনি সূর্যোদয়ের পর তা আদায় করে নিতেন।
    যেমন বিশুদ্ধ সূত্রে আবু হুরায়রা রা. থেকে বর্ণিত আছে, একবার রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ফজরের দুই রাকাত সুন্নত ঘুমের কারণে পড়তে পারেননি, তিনি তা সূর্যোদয়ের পর আদায় করে নিয়েছেন। (সুনানে ইবনে মাজাহ, হাদীস ১১৫৫)

মন্তব্য বন্ধ