রমজান ব্যতীত অন্য সময়ে বিতির নামাজ জামাতে পড়া যায় কি?

জিজ্ঞাসা–১৫৬৪: রমজান ব্যতীত অন্য সময়ে বিতির নামাজ জামাতে পড়া যায় কি?–ফজলুল বারী।

জবাব: রমজান ব্যতীত অন্য সময়ে বিতির নামাজ জামাতে পড়ার নিয়ম নেই। কেননা, হাদিসে এর কোনো প্রমাণ পাওয়া যায় না। বরং হাদিস এবং সাহাবায়ে কেরাম ও তাবেয়ীগণের আমল থেকে বোঝা যায় যে, রমজানে তারাবীহ শেষে বিতর নামায জামাতের সাথে পড়া হবে। অন্য সময়ে নয়। যেমন,

১. জাবির রাযি. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন,

خرج النبى ﷺ ذات ليلة فى رمضان فصلى الناس اربعة وعشرون ركعة واوتر بثلاثة

রমজান মাসের এক রাতে রাসূল সা: বাহিরে তাশরীফ নিয়ে এলেন। আর সাহাবায়ে কেরামকে ২৪ রাকাত [৪ রাকাত ঈশার, আর ২০ রাকাত তারাবীহের] নামায পড়ালেন। আর তিন রাকাত বিতির পড়ালেন। (তারীখে জুরজান ২৭)

২. আবু আব্দুর রহমান সুলামী রহ. আলী রাযি. থেকে বর্ণনা করেন,

دعى القراء فى رمضان فامر منهم رجلا يصلى بالناس عشرين ركعة قال وكان على يوتر بهم

আলী রাযি. রমজান মাসে কারীদের ডাকতেন। তারপর তাদের মাঝে একজনকে বিশ রাকাত তারাবীহ পড়াতে হুকুম দিতেন। আর বিতিরের জামাত হযরত আলী নিজেই পড়াতেন। (বায়হাকী-৪/৪৯৬)

৩.  আব্দুল আজীজ বিন রফী রহ. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন,

كَانَ ‌أُبَيُّ ‌بْنُ ‌كَعْبٍ ‌يُصَلِّي ‌بِالنَّاسِ ‌فِي ‌رَمَضَانَ ‌بِالْمَدِينَةِ عِشْرِينَ رَكْعَةً، وَيُوتِرُ بِثَلَاثٍ

‘উবাই ইবনে কাব রাযি. মদীনায় লোকদের নিয়ে বিশ রাকাত তারাবীহ পড়াতেন এবং তিন রাকাত বিতর পড়াতেন। (মুসান্নাফে ইবনে আবী শায়বা ৭৬৮৪)

والله أعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

three × 1 =