শালীকে বিয়ে করলে স্ত্রী হারাম হয়ে যায় কিনা?

জিজ্ঞাসা–৪৭৯: অাসসালামু অালাইকুম। খুব জরুরী একটা প্রশ্ন দয়া করে উত্তর দেবেন ৷ কোন স্বামী যদি বউ এর অজান্তে বা অনুমতি ছাড়াই তারই অাপন শালীকে বিয়ে করে ফেলে, এক্ষেত্রে হারাম কে হবে? ছোটবোন না বড়বোন অার ইসলামের বিধান কি?–নুশরাত লামিয়া

জবাব: وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

স্ত্রীর সাথে বৈবাহিক সম্পর্ক বহাল থাকা অবস্থায় তার বোনকে বিবাহ করা বৈধ নয়। করলেও সে বিবাহ ‘বিবাহ’ হয় না এবং শালী তথা স্ত্রীর বোন ‘স্ত্রী’ হয় না।

পবিত্র কুরআনে আল্লাহ তাআলা বলেন-  وَأَنْ تَجْمَعُوا بَيْنَ الْأُخْتَيْنِ অর্থাৎ আর দুই বোনকে একসাথে বিয়ে করাও তোমাদের জন্য হারাম করা হয়েছে৷ (সূরা আন নিসা: ২৩)

উক্ত আয়াতের তাফসিরে ইমাম কুরতুবি রহ. বলেন,

وأجمعت الأمة على منع جمعهما في عقد واحد من النكاح لهذه الآية

উম্মত এ ব্যপারে একমত যে,  এ আয়াতের কারণে দুই বোনকে বিবাহের মাধ্যমে একসাথ করা হারাম। (আলজামি’ লি আহকামিল কুরআন ৫/১১৬)

সুতরাং এজাতীয় বিয়ের দ্বারা স্ত্রী হারাম হয় না; বরং স্ত্রীর বোন যে ‘স্ত্রী’ই হয় নি সে আগে যেমন হারাম ছিল, এখনও হারাম আছে। তার সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক স্থাপন করা শরিয়তের দৃষ্টিতে ব্যভিচার বৈ কিছু নয়।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী
আরো পড়ুন–
স্ত্রীর বোনকে বিয়ে করা যাবে কি?
স্ত্রীর তালাকপ্রাপ্ত বড় বোনকে বিয়ে করা যাবে কি?
প্রিয় বোন! কেন পর্দা করবেন?
সংসার সুখের হয় দু’জনের গুণে

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + 13 =