সমিতি থেকে টাকা তুলে ইসলামের কাজে ব্যয় করা যাবে কি?

জিজ্ঞাসা–৮২৬: সমিতি থেকে টাকা তুলে ইসলামের কাজে ব্যয় করা যাবে কি?– Mahmud

জবাব: প্রচলিত ধারার সমিতিগুলো সুদী অর্থনীতির উপর প্রতিষ্ঠিত। আর ইসলামের একটি অকাট্য বিধান হল, সুদ হারাম। যেমন এক হাদিসে এসেছে, আব্দুল্লাহ ইবন হানযালা রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ ﷺ বলেছেন,

دِرْهَمٌ رِبًا يَأْكُلُهُ الرَّجُلُ وَهُوَ يَعْلَمُ أَشَدُّ مِنْ سِتَّةٍ وَثَلَاثِينَ زَنْيَةً

জেনে-শুনে এক দিরহাম পরিমাণ সুদ খাওয়া আল্লাহর নিকট ৩৬ জন নারীর সাথে ব্যভিচারের চাইতে অধিক গুনাহের কাজ। (মুসনাদে আহমাদ ২১৪৫০)

সুতরাং সুতরাং কর্তব্য হল, কোনোভাবেই সুদী-লেনদেনে জড়িত না হওয়া।

তবে যদি সুদী-লেনদেনে কোনা কারণে জড়িয়ে পড়ে তাহলে সেক্ষেত্রে সুদের টাকাটা কী করা হবে–এব্যাপারে এক দল ওলামায়ে কেরামের মত হল, সুদের অংশটা সাওয়াবের নিয়ত ছাড়া গরিবদের মধ্যে অথবা জনকল্যাণমূলক কাজে দান করে দিবে। (ফাতওয়ায়ে উসমানী-৩/২৬৯)

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
শায়েখ উমায়ের কোব্বাদী