স্ত্রী ইদ্দত পালনে অবহেলা করলে মৃত স্বামীর গুনাহ হবে কি?

জিজ্ঞাসা–৫৫৭: কোনো নারীর স্বামী মারা যাওয়ার পর যদি সেই নারী কিছুদিন পর থেকেই পরপুরুষের সামনে যাওয়া শুরু করে দেয় এবং ইদ্দত পালনের পুরো সময়টা সব নিয়ম-কানুন ঠিকভাবে মেনে না চলে তাহলে কি ওই মৃত ব্যক্তির গুনাহ হবে? তার স্ত্রীর এই ধরণের আচরণের কারণে?– যীনাত আক্তার।

জবাব: ইদ্দত একটি ওয়াজিব বিধান। এটি লঙ্ঘন করা কবিরা গুনাহ। একটি দীর্ঘ হাদীসে এসেছে যে, এক মহিলার স্বামী ইন্তেকাল করলে সে রাসূলুল্লাহ -এর নিকট নিজের পিত্রালয়ে চলে যাওয়ার অনুমতি চায়। তখন রাসূলুল্লাহ ﷺ তাকেও অনুমতি দেন নি; বরং তাকে বলেছিলেন, امْكُثِي فِي بَيْتِكِ حَتَّى يَبْلُغَ الكِتَابُ أَجَلَهُ তুমি ইদ্দত শেষ হওয়া পর্যন্ত তোমার (স্বামীর) ঘরেই অবস্থান কর। ( তিরমিযী ১২০৪)

তবে একজনের গুনাহ আরেকজনের উপর বর্তায় না। সুতরাং স্ত্রী ইদ্দত লঙ্ঘনের কোনো কাজ করলে এর কারণে মৃত স্বামী গুনাহগার হবে না। কেননা আল্লাহ তাআলা বলেন,

وَلَا تَكْسِبُ كُلُّ نَفْسٍ إِلَّا عَلَيْهَا وَلَا تَزِرُ وَازِرَةٌ وِزْر أُخْرَى

যে ব্যক্তি কোন গোনাহ করে, তা তারই দায়িত্বে থাকে। কেউ অপরের বোঝা বহন করবে না। (সূরা আনআ’ম ১৬৪)

অন্যত্র তিনি বলেন,

وَإِنْ تَدْعُ مُثْقَلَةٌ إِلَى حِمْلِهَا لَا يُحْمَلْ مِنْهُ شَيْءٌ وَلَوْ كَانَ ذَا قُرْبَى

কেউ অপরের বোঝা বহন করবে না। কেউ যদি তার গুরুতর ভার বহন করতে অন্যকে আহবান করে কেউ তা বহন করবে না-যদি সে নিকটবর্তী আত্নীয়ও হয়। (ফাতির ১৮)

الله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
শায়েখ উমায়ের কোব্বাদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 − four =