স্বামী-স্ত্রীর একান্ত মুহূর্তের ছবি তোলা এবং ভিডিও কলের মাধ্যমে তৃপ্ত হওয়া

জিজ্ঞাসা–১২৬৪: স্বামী-স্ত্রী একে অপরের গোপন অঙ্গের ছবি তোলা জায়েজ আছে কি? তারা কি ভিডিও কলে তাদের দেহ প্রদর্শন করতে পারবে?– Golam sarwar

জবাব: প্রিয় প্রশ্নকারী ভাই, স্বামী-স্ত্রীর একান্ত মুহূর্তের ছবি/ভিডিও করা সম্পর্কে আরব বিশ্বের সর্বোচ্চ ফতোয়া কমিটি ‘ফাতাওয়া লাজনাতিদ্দায়িমা’-কে জিজ্ঞেস করা হলে তারা উত্তরে লিখেন–

تصوير ما يحصل من الزوجين عند المعاشرة الزوجية محرم شديد التحريم؛ لعموم أدلة تحريم التصوير، ولما يفضي إليه تصوير المعاشرة الزوجية خصوصا من المفاسد والشرور التي لا تخفى، مما لا يقره شرع ولا عقل ولا خلق، فالواجب الابتعاد عن ذلك، والحرص على صيانة العرض والعورات، فإن ذلك من الإيمان واستقامة الفطرة، ومما يحبه الله سبحانه

স্বামী-স্ত্রীর একান্ত মুহূর্তের ছবি/ভিডিও গ্রহণ শক্ত হারাম। কেননা, ছবি/ভিডিও হারাম হওয়ার দলিলগুলো আম বা ব্যাপক। তাছাড়া বলা বাহুল্য যে, বিশেষত স্বামী-স্ত্রীর একান্ত মুহূর্তের ছবি/ভিডিও গ্রহণে রয়েছে বহু মন্দ ও অনিষ্টতা। যার অনুমতি শরিয়ত, যুক্তি কিংবা চরিত্র দেয় না। সুতরাং এ থেকে দূরে থাকা আবশ্যক। ইজ্জত ও গোপন বিষয়গুলোর হেফাজতের প্রতি যত্নবান হওয়া অপরিহার্য। কেননা, এটা ঈমান ও সুস্থ রুচিবোধের দাবি। আর এটা আল্লাহ তাআলাও পসন্দ করেন।(ফাতাওয়া লাজনাতিদ্দায়িমা ২২৬৫৯)

আর স্ত্রীর সাথে ভিডিও কলে কথা বলে পরস্পরের দেহ প্রদর্শন সম্পর্কে কথা হল, যদি একে অপরকে এমনভাবে উত্তেজিত করে যে, হস্তমৈথুন ব্যতীতই তৃপ্ত হয়ে যায় তাহলে বিশেষত ব্যভিচার ও গোপন গুনাহর উদগ্র বাসনা সৃষ্টি হওয়াকে রোধ করার উদ্দেশ্যে ভিডিও অথবা অডিও কলে নিজের স্ত্রীর সাথে কথা বলে অথবা তাকে দেখে যৌনতৃপ্তি লাভ করা জায়েয।

তবে শর্ত হল অন্য কেউ যেন স্বামী-স্ত্রীর আলাপচারিতা শুনতে না পায় অথবা স্ত্রীর শরীরের কোনো অংশ দেখতে না পায় সে ব্যাপারে পুরোপুরি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। আল্লাহ তাআলা বলেন,
وَالَّذِينَ هُمْ لِفُرُوجِهِمْ حَافِظُونَ إِلَّا عَلَى أَزْوَاجِهِمْ أوْ مَا مَلَكَتْ أَيْمَانُهُمْ فَإِنَّهُمْ غَيْرُ مَلُومِينَ
(সফল মু’মিন তারা) যারা নিজেদের যৌন অঙ্গকে সংযত রাখে। তবে তাদের স্ত্রী ও মালিকানাভুক্ত দাসীদের ক্ষেত্রে সংযত না রাখলে তারা তিরস্কৃত হবে না। অতঃপর কেউ এদেরকে ছাড়া অন্যকে কামনা করলে তারা সীমালংঘনকারী হবে। (সূরা মু’মিনূন ৫-৭)
والله اعلم بالصواب

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − thirteen =