ট্যাক্স কমাতে সুদভিত্তিক সঞ্চয়পত্র কেনা জায়েয আছে কি?

জিজ্ঞাসা–৩০২: ট্যাক্স কমাতে সুদভিত্তিক সঞ্চয়পত্র কেনা জায়েজ আছে কি? যদি ঐ ব্যক্তি সুদ ভক্ষণ না করার নিয়তে কিনে এবং প্রাপ্ত সুদ ছউয়াবের নিয়ত ছাড়া বিতরণ করে দেয়। জাযাকাল্লাহ–MD ATIQUR RAHMAN

জবাব: এভাবে সুদভিত্তিক সঞ্চয়পত্র কেনা মানে প্রকারান্তরে সুদের কারবার থেকে ফায়দা ভোগ করা এবং সুদী চুক্তির অন্তর্ভুক্ত হওয়া। অথচ কোরআন, সুন্নাহ ও ইজমার মাধ্যমে সুদের কারবার হারাম হওয়া প্রমাণিত। ‘সুদ গ্রহণ’ যেমনিভাবে হারাম, তেমনিভাবে সুদী চুক্তির অন্তর্ভুক্ত হওয়াও সম্পূর্ণ হারাম। হাদিসে এসেছে-

لَعَنَ رَسُولُ اللهِ ﷺ آكل الربا وموكله وكاتبه وشاهديه، وقال : هم سواء.

আল্লাহর রাসূল ﷺ সুদখোর, সুদদাতা, সুদের লেখক এবং তার উপর সাক্ষীদ্বয়কে অভিশাপ করেছেন, আর বলেছেন, ওরা সকলেই সমান। (মুসনাদে আহমাদ ৩৮০৯)

আর প্রাপ্ত সুদ সাওয়াবের নিয়ত ছাড়া দান করার চিন্তা এখানে অমূলক। কেননা এ মাসআলাটি তো কেবল সে ব্যক্তির জন্য যে সুদ গ্রহণ করে ফেলেছে অথবা কোনা কারণে বাধ্যতামূলক হয়ে সুদের কারবারে জড়িয়ে পড়েছে। মনে রাখবেন, গরিবের রিজিকদাতা বান্দা নয়। বান্দার কর্তব্য হল, আল্লাহ তাআলার আদেশ-নিষেধ মেনে চলা।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
শায়েখ উমায়ের কোব্বাদী

আরো পড়ুন:

আরো পড়ুন: মোবাইল ব্যাংকিং কি সুদের আওতায় পড়ে?

আরো পড়ুন: ব্যাংকের আইটিতে চাকরি করা কি হারাম?

আরো পড়ুন: জীবন বীমা (Life Insurance) জায়েয আছে কিনা?

আরো পড়ুন: হোম লোন নেয়া জায়েয আছে কি?

আরো পড়ুন: মোবাইল কোম্পানি থেকে ঋণ নিলে অতিরিক্ত দেয়া জায়েয হবে কি?

আরো পড়ুন:  বিকাশের লেন-দেন জায়েয কিনা?

আরো পড়ুন: ব্যাংক বা সমিতিতে টাকা জমা রাখা বা চাকরি করা যাবে কি?

আরো পড়ুন: ডেসটিনিসহ সকল মালটিলেভেল মার্কেটিং কোম্পানিগুলোতে চাকুরি করা

ন্তব্য

  1. জনাব, আমি আমার সন্তানের নাম রাখতে চাচ্ছি “আহমাদ ইবনে আরিফ” এটি যথাযথ অর্থপূর্ণ হবে কিনা জানালে উপকৃত হবো।
    উল্লেখ্য আগামী ২০/৪/২০২০ তারিখ আমার সন্তানের ৭ম দিন।

মন্তব্য বন্ধ