টুপি মাথায় না দিয়ে নামাজ আদায় করা যাবে কিনা?

জিজ্ঞাসা–২৪৬: আসসালামু আলাইকুম। টুপি মাথায় না দিয়ে নামায আদায় করা যাবে কিনা? Nomaan

জবাব: وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

আল্লাহ তাআলা এরশাদ করেন, يا بَني آدَمَ خُذوا زينَتَكُم عِندَ كُلِّ مَسجِدٍ ‘তোমরা নামাজের সময় তোমাদের সর্বোৎকৃষ্ট পোশাক পরিধান করো’(সূরা আরাফ : ৩১) এ আয়াত থেকে বোঝা যায়, নামাজ আদায় করার ক্ষেত্রে পোশাক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। রাসূলুল্লাহ ﷺ মাথা ঢেকে নামাজ আদায় করতেন, আমাদেরও তাই করা উচিত। সাহাবায়েকেরাম ও তাবিঈগণও এ বিষয়ে যথেষ্ট গুরুত্ব দিতেন। যেমন,

إن ابن عمر رضي الله عنه قال لغلامه نافع لما رآه يصلي حاسر الرأس: أرأيت لو خرجت إلى الناس كنت تخرج هكذا؟ قال: لا قال: فالله أحق من يتجمل له
একদা ইবনে ওমর রাযি. তার গোলাম নাফে’কে খালি মাথায় নামাজ আদায় করতে দেখে জিজ্ঞেস করলেন, তুমি যদি সেসব সম্ভ্রান্ত লোকদের নিকট গমন করতে তাহলে কি এভাবে খালি মাথায় গমন করতে? নাফে’ বললেন, না। যেতাম না। তখন ইবনে ওমর রাযি. বললেন, তাহলে আল্লাহ তো তাদের চেয়েও তোমার সৌন্দর্য্যের বেশি হকদার। (হিজাবুল মারআতি ওয়া লিবাসুহা ফিস স্বালাতি ২/৩)
হাসান বসরী রহ. বলেন-وكان القوم يسجدون على العمامة والقلنسوةতাঁরা (সাহাবায়ে কেরাম গরমের দিনে) পাগড়ি বা টুপির উপর সিজদা করতেন। (সহীহ বুখারী, কিতাবুস সালাত)

উল্লেখ্য, হাসান বসরী রহ. অনেক বড় মনীষী তাবেয়ী, যিনি অনেক সাহাবীকে দেখেছেন এবং তাদের সাহচর্য গ্রহণ করেছেন।

যুহাইর রহ. বলেন, আমি প্রখ্যাত তাবেয়ি আবু ইসহাক সাবিয়ীকে দেখেছি, তিনি আমাদের নিয়ে নামাজ পড়েছেন। তিনি মাটি থেকে টুপি উঠিয়ে মাথায় পরেছেন।(তাবাকাতে ইবনে সাদ ৬/৩১৪)

তাই ফুকাহায়ে কেরাম নামাজে টুপি পরা সুন্নত বলেছেন এবং অবহেলা করে টুপি না পরে নামাজ পড়াকে মাকরুহ বলেছেন, যদিও নামাজ আদায় হয়ে যাবে। (ফাতাওয়া কাজিখান ১/১৩৫)

আল্লামা হাসকাফী রহ. দুররে মুখতার (১/৬৯১) কিতাবে লিখেন, و صلوته حاسرا اي كاشفا راسه للتكاسل অলসতাবশত: খালি মাথায় নামাজ পড়া মাকরুহ।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
শায়েখ উমায়ের কোব্বাদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 + 19 =