সালামের উত্তর না দিলে গোনাহ হবে কি?

জিজ্ঞাসা-০২: কোনো ব্যাক্তিকে সালাম দিলে যদি উত্তর না দেয় তাহলে কি গোনাহ হবে?

জবাব : আমাদের অনেকেরই সালামের উত্তরের ব্যাপারে গাফলতি করে থাকি। অনেক সময় সালামের জবাব দেই না কিংবা পূর্ণ জবাব দিতে কার্পণ্য করে থাকি। দায়সারাভাবে উত্তর দিই। অথচ সালাম দেয়া সুন্নাত,জবাব দেয়া ওয়াজিব। কোনো ব্যাক্তি যদি বিনাওজরে সালামের জবাব না দেয় তাহলে সে ওয়াজিব তরকের অপরাধে গুনাহগার হয়। (রদ্দুল মুহতার- ৬/৪১৩, হিন্দিয়া- ৫/৩৩৫,কেফায়াতুল ফাতওয়া- ৭২, খুলাসাতুল ফাতাওয়া- ৪/৩৩৩)
কারণ, সালাম ইসলামের শেআর ও প্রতীক পর্যায়ের একটি আমল। আল্লাহ তাআলা কুরআনেই শিখিয়েছেন; কেউ সালাম দিলে তার চেয়ে উত্তম শব্দে উত্তর দেয়া উচিত। আল্লাহ তাআলা বলেছেন,

وَإِذَا حُيِّيْتُم بِتَحِيَّةٍ فَحَيُّواْ بِأَحْسَنَ مِنْهَا أَوْ رُدُّوهَا إِنَّ اللّهَ كَانَ عَلَى كُلِّ شَيْءٍ حَسِيبًا

(তরজমা) ‘যখন কেউ তোমাদের সালাম করে, তখন তোমরা তাকে তদপেক্ষাও উত্তম পন্থায় সালাম (জবাব) দিও কিংবা (অন্ততপক্ষে) সেই শব্দেই তার জবাব দিও। নিশ্চয়ই আল্লাহ সবকিছুর হিসাব রাখেন।’

হাদীসে আছে, পারষ্পরিক সালাম বিনিময়ে পারষ্পরিক ভালোবাসা বৃদ্ধি পায়।–মিশকাত হা/৪৬৩১
সুতরাং সালামের জবাব দেয়ার ব্যাপারে কার্পণ্য করা মানে নিজেকে অযথা গুনাহগার করা। যা মোটেও কাম্য নয়।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
শায়েখ উমায়ের কোব্বাদী
আরো পড়ুন

ন্তব্য

  1. Assalamu alaikum 215 number question e apni answer diye chilen khabar shomoy salam deoa jabe but eikhane bolchen jabena. Amra konta amol korbo?? Janale upokrito hobo.

মন্তব্য বন্ধ